স্বাস্থ্য

করোনার ভারতীয় ধরন কি বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে?

0

করোনাভাইরাসের শক্তিশালী ভারতীয় ধরনটি বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে কিনা তা চলমান অনুসন্ধানের ভিত্তিতে বাংলাদেশ সরকার খুব দ্রুত নিশ্চিত করতে পারবে বলে সোমবার জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

অধিদপ্তরের মুখপাত্র ডা. নাজমুল ইসলাম ভার্চুয়াল এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেছেন, বাংলাদেশে করোনার ভারতীয় ধরনটি প্রবেশ করেছে কিনা সে ব্যাপারটি আমরা কিছু দিনের মধ্যে নিশ্চিত করতে সক্ষম হব।

তিনি আরো বলেন, ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করার পর যাদের করোনা পজেটিভ এসেছে তাদের নমুনা গ্রহণ করে জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের জন্য পাঠানো হয়েছে এবং রিপোর্ট এলেই বিষয়টি জানানো হবে।

এক প্রশ্নের উত্তরে নাজমুল বলেন, যারা ইতোমধ্যে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন থেকে প্রথম ডোজ নিয়েছেন তারা অন্য যেকোনো কোম্পানির ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নিতে পারবেন এবং এ ব্যাপারে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা ভ্যাকসির উৎপাদনকারী কোম্পানিগুলোর কোনো নির্দেশনা নেই।

তিনি বলেন, অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনের জন্য ১২ সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হবে এবং আশা করছি এই সময়ের মধ্যে অক্সফোডের ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে।

ডিজিএইচএসের মুখপাত্র আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, বিশ্বব্যাপী করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে এক ধরনের কূটনৈতিক দৌরাত্ম লক্ষ্য করা যাচ্ছে। যদিও এটি আসলে মানবতার জয়গান। আমরা দেখে আসছি বাংলাদেশ এ ব্যাপারে বরাবরই সফল হয়ে আসছে। এবং এ কারণে আমরা আশা করতে পারি, আমরা অক্সফোর্ডের দ্বিতীয় ডোজও পেয়ে যাব।

যত দ্রুত সম্ভব চীন, রাশিয়াসহ বিভিন্ন উৎস হতে ভ্যাকসিন সংগ্রহের প্রক্রিয়া চলছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আশা করা হচ্ছে এ মাসে চীন থেকে করোনা ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে।

করোনা মোকাবিলায় ভ্যাকসিনের অনুপস্থিতিতে মাস্ক ব্যবহারই সর্বোত্তম পন্থা উল্লেখ করে নাজমুল হাসান বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় মাস্ক ব্যবহার এবং যথাযথ স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে চলতে আহ্বান জানিয়েছেন।

সূত্র : ইউএনবি

ঢাকা বার্তা

মমতার শপথ ৫ মে

Previous article

চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে সিঙ্গাপুর নিতে চায় বিএনপি

Next article

You may also like